গড়াতে গড়াতে কোন বোঁটা থেকে

কোথায় তার শুরু, কোন আকাশের কোন বোঁটায়
কেউ জানে না; কেউ জানে না কোন দরিয়ায়
কোন ঘূর্ণিস্রোতের গোপনাঙ্গে শেষমেশ তার ঠাঁই।
তবু যখন অঙ্কুরিত হলো তার বীর্য, শুধু যাই-যাই।

যাবে তো যাবে, কিন্তু কোথায় যাবে, কোন পথে?
ঠিকানা অটুট আছে কোন বটমূলে, কোন অশ্বত্থে?
যেতে যেতে পাল গুটাবে কোন চিলমারীর ঘাটে?
গাভীর ওলান ছেড়ে কোন সুন্দরীতমার দুধের বাঁটে?

যেখানেই যাও, যেভাবেই, আমি কিন্তু পেছন ছাড়িনি;
এতো দুস্মন্ত এতো অর্জুন আমি কারো কাছেই হারিনি;
আমার হাতে গদা নেই, আমি নই রঁদার মতো সুনিপুণ;
খুনোখুনিতেই মগ্ন, বারবার আমি নিজেও হয়ে যাই খুন।

বৃষ্টি বলো শিশির বলো আমি আজ যে কোনো ফোঁটার জন্যে উদগ্রীব;
টগবগ ফুটছে আমার তৃষ্ণা, আমি মহাদেব, আমি নটরাজ, আমি শিব।

মন্তব্য

মন্তব্য সমুহ

সম্পর্কিত পোষ্ট =>  হেমন্তে সোনালি ডিম
মুহম্মদ নূরুল হুদা- এর আরো পোষ্ট দেখুন →
রেটিং করুনঃ
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...