অল্পকথা ডট কম

স্বর্নালী দিনের স্পর্শ

সাথে থাকুন

Download

গান শুনতে এখানে ক্লিক »করুন !

Member Login

Lost your password?

Not a member yet? Sign Up!

তসলিমা নাসরীন

লেখকঃ তসলিমা নাসরীন

লেখক সম্পর্কেঃ তসলিমা নাসরিন (জন্ম: ২৫ আগস্ট, ১৯৬২) বাংলাদেশের একজন সাহিত্যিক ও চিকিৎসক। বিংশ শতাব্দীর আশির দশকে একজন উদীয়মান কবি হিসেবে সাহিত্যজগতে প্রবেশ করে তসলিমা এই শতকের শেষের দিকে নারীবাদী ও ধর্মীয় সমালোচনামূলক রচনার কারণে আন্তর্জাতিক খ্যাতি লাভ করেন। তিনি তাঁর রচনা ও ভাষণের মাধ্যমে লিঙ্গসমতা, মুক্তচিন্তা, ধর্মনিরপেক্ষ মানবতাবাদ ও মানবাধিকারের প্রচার করায় ধর্মীয় মৌলবাদী গোষ্ঠীদের রোষানলে পড়েন ও তাঁদের নিকট হতে হত্যার হুমকি পেতে থাকায় ১৯৯৪ খ্রিস্টাব্দে বাংলাদেশ ত্যাগ করে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বসবাস করতে বাধ্য হন;তিনি কিছুকাল যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করেছেন।

লেখকের ইউআরএলঃ
অবস্থান:
প্রোফাইলঃ ৫৭ views হয়েছে ।

তসলিমা নাসরীন, মন্তব্য সংখ্যাঃ ০

তসলিমা নাসরীন, পোষ্ট সংখ্যাঃ ৫০

যুক্ত হয়েছেনঃ জুলাই ২৪, ২০১৭, সোমবার,

তসলিমা নাসরীন 'র পছন্দের পোষ্টঃ
  • "এখনো কোন পছন্দের পোষ্ট যুক্ত করেন নাই ।"

  • ফারুকীর ডুব এবং বাক স্বাধীনতা

    সংযুক্তির তারিখঃ ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ লিখেছেনঃ তসলিমা নাসরীন

    ২৪ বছর আমি দেশে নেই। এই ২৪ বছরে অনেক নতুন শিল্পী সাহিত্যিক নাট্যকার চলচ্চিত্র নির্মাতা বাংলাদেশে বিখ্যাত হয়েছেন, আমি সবার নাম জানি না। মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর নাম আমি প্রথম শুনি আমার বোনের কাছে। ফারুকীর কিছু নাটক ও আমাকে দেখিয়েছিল। নিউইয়র্কের বাঙালিরা জ্যাকসন হাইটসের দোকান থেকে বাংলা নাটকের সিডি ভাড়া করে নিয়ে আসে। আমার বোনও তাই […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    ফারুকীর ডুব এবং বাক স্বাধীনতা তে মন্তব্য বন্ধ

    ঘাস

    সংযুক্তির তারিখঃ ০৮ জানুয়ারী ২০১৭ লিখেছেনঃ তসলিমা নাসরীন

    তার চেয়ে ঘাস হয়ে যাই চল, তাকে বলেছিলাম, সে বলেছিল চল। বলেছিল, তুমি আগে হও, আমি পরে। বলেছিল, তোমার ডগায় ছোট চুমু খেয়ে তারপর আমি। ঘাস হলাম, সে হলো না। আমাকে পায়ে মাড়িয়ে অন্য কোথাও চলে গেল। কোথায় কার কাছে কে জানে ! ঘাসের কি সাধ্য আছে খোঁজ নেয় ! কোনও একদিন বছর গেলে শুনি […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    ঘাস তে মন্তব্য বন্ধ

    সময়

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬ লিখেছেনঃ তসলিমা নাসরীন

    সময় চলে যাচ্ছে– এই বীভৎস ব্যাপারটি দেখতে ইচ্ছে করে না তাই অনেককাল ঘড়ির দিকে তাকাইনি, অনেককাল হাতে আমি ঘড়ি পরি না, আর যেই না তুমি বলছো সোয়া দশটায় কোথাও দেখা হবে কী দেড়টায় বাড়িতে আসবে কী সাতটায় থিয়েটারে, অমনি তড়িঘড়ি ঘড়ি খুঁজে হাতে পরছি, ঘরের সবগুলো টেবিলে দেয়ালে বাচ্চা-মেয়ের মত রাখছি, টাঙাচ্ছি। যেন একটি দিনের […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    সময় তে মন্তব্য বন্ধ

    ডায়াবেটিসের সঙ্গে ঘর সংসার

    সংযুক্তির তারিখঃ ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৬ লিখেছেনঃ তসলিমা নাসরীন

    ডায়াবেটিসের একটা বাংলা নাম আছে, বহুমুত্র। বিচ্ছিরি একটা নাম। রোগের উপসর্গ বহুমুত্র, রোগের নাম কেন উপসর্গের নামে হবে! আমি ডায়াবেটিসকে ডায়াবেটিসই বলি। এই রোগটা ইউরোপের লোকদের কিন্তু ততটা নেই, যতটা আছে আমাদের, এই ভারতীয় উপমহাদেশের লোকদের। আমাদের অঞ্চলে মানুষ দুর্ভিক্ষে ভুগেছে অনেক। না খেয়ে থেকেছে দিনের পর দিন। আর যখনই খাদ্য জুটেছে, শরীর সেই খাদ্যগুলোকে […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    ডায়াবেটিসের সঙ্গে ঘর সংসার তে মন্তব্য বন্ধ

    ভ্রূণ

    সংযুক্তির তারিখঃ ০৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬ লিখেছেনঃ তসলিমা নাসরীন

    যে একটি ভ্রূণ নষ্ট করতে পারে সে ইচ্ছে করলেই একঝাঁক তুলতুলে শিশুকে কুয়োর কাছে ডেকে এনে আচমকা ধাক্কা দিতে পারে। যে একটি ভ্রূণ নষ্ট করতে পারে সে বাগানের সমস্ত গোলাপ গাছ উপড়ে ফেলতে পারে স্নানের পুকুরে নামাতে পারে অসংখ্য হাঙর। যে একটি ভ্রূণ নষ্ট করতে পারে বিশাল জনসভায় সে শখ করে ছেড়ে দিতে পারে একলক্ষ […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    ভ্রূণ তে মন্তব্য বন্ধ

    ব্রহ্মাণ্ড আমার দেশ, পৃথিবী আমার গ্রাম

    সংযুক্তির তারিখঃ ১৫ আগস্ট ২০১৬ লিখেছেনঃ তসলিমা নাসরীন

    তখন আঠারো বছর বয়স আমার। ময়মনসিংহ থেকে ট্রেনে আখাউড়া হয়ে সিলেটে যাচ্ছি, মেডিকাল কলেজে ভর্তি হব। আখাউড়া স্টেশনে বসে দাদা বলল, ‘ডান দিকে দেখ, ও দিকটা ভারত।’ শুনে বেশ শিহরিত হলাম। আমি তখন ‘সেঁজুতি’ করি। আমার কবিতা-পত্রিকায় পশ্চিমবঙ্গের কবিরা কবিতা লেখেন। ওঁরা তা হলে ও দিকে বাস করেন। আমি এ দিকে। আকাশের দিকে তাকিয়ে দেখলাম […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    ব্রহ্মাণ্ড আমার দেশ, পৃথিবী আমার গ্রাম তে মন্তব্য বন্ধ

    যখন নেই, তখন থাকো

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৮ জুলাই ২০১৬ লিখেছেনঃ তসলিমা নাসরীন

    যখন আমার সঙ্গে নেই তুমি, আমার সঙ্গে তুমি তখন সবচেয়ে বেশি থাকো। আমি হাঁটি, পাশাপাশি মনে হয় তুমিও হাঁটছো, তোমাকে সঙ্গে নিয়ে বাজারে যাই, যা যা খেতে পছন্দ করো, কিনি, তুমি নেই জেনেও কিনি। রাঁধি যখন, দরজায় যেন হেলান দিয়ে দাঁড়িয়ে আছো, মনে মনে কথা বলি। খেতে বসি, ভাবি তুমিও বসেছো। যা কিছুই দেখি, পাশে […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    যখন নেই, তখন থাকো তে মন্তব্য বন্ধ

    দ্বিখন্ডিত

    সংযুক্তির তারিখঃ ১৫ জুন ২০১৬ লিখেছেনঃ তসলিমা নাসরীন

    সে তোমার বাবা, আসলে সে তোমার কেউনয় সে তোমার ভাই, আসলে সে তোমার কেউ নয় সে তোমার বোন, আসলে সে তোমার কেউ নয় সে তোমার মা, আসলে সে তোমার কেউ নয় । তুমি একা যে তোমাকে বন্ধু বলে, সেও তোমার কেউ নয় । তুমি একা। তুমি যখন কাঁদো, তোমার আঙুল তোমার চোখের জল মুছে দেয়, […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    দ্বিখন্ডিত তে মন্তব্য বন্ধ

    না থাকা

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৮ মার্চ ২০১৬ লিখেছেনঃ তসলিমা নাসরীন

    একটি ভীষণ না-থাকাকে সঙ্গে নিয়ে আমি প্রতি রাত্তিরে ঘুমোতে যাই; ঘুমোই, ঘুম থেকে উঠি, কলঘরে যাই — না-থাকাটি সঙ্গে থাকে। দিনের হই চই শুরু হয়ে যায় দিনের শুরুতেই, একশ একটা লোকের সঙ্গে ওঠাবসা– এই কর সেই করর দৌড়োদৌড়ি– লেখালেখি– এ কাগজ পাচ্ছি তো ও কাগজ গেল কই! হাটবাজার, খাওয়াখাদ্যি, সব কিছুর মধ্যে ওই না-থাকাটি থাকে। […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    না থাকা তে মন্তব্য বন্ধ

    কবোষ্ণ জীবন

    সংযুক্তির তারিখঃ ১২ নভেম্বর ২০১৫ লিখেছেনঃ তসলিমা নাসরীন

    রুদ্রর সঙ্গে যখন জীবন দেওয়া নেওয়া ইত্যাদি সব সারা তখনও তার সঙ্গে আমার দেখা হয়নি। চিঠিতেই আলাপ, চিঠিতেই প্রেম, চিঠিতেই যা কিছুএ। খেলার ছলে ওই জীবন দেওয়া নেওয়ার ব্যাপারটি ঘটেছে। রুদ্র জানাল, ২৯ আশ্বিন তার জম্নদিন। -‘জম্নদিনে কি চাও বল। তুমি যা চাও, তাই দেব তোমাকে’। -‘যা চাই তা দেওয়া কি তোমার পক্ষে সম্ভব হবে?’ […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    কবোষ্ণ জীবন তে মন্তব্য বন্ধ

    ই-মেইলের মাধ্যমে নতুন পোষ্ট-এর জন্য

    আপনার ই-মেইল লিখুন

    ,

    আগস্ট ২০, ২০১৭,রবিবার

    Custom Search
    আপনার বিজ্ঞাপন !

    বাংলা সংবাদপত্র