প্রতিক্ষা

কিংশুক পথ বাঁক নিয়ে যেখানে গ্রাম ছুঁয়েছে
তার একটু আগেই পদ্মদীঘি।
শান বাঁধানো ঘাটে আমার প্রতিক্ষা চাতাল।
তোর অপেক্ষায় অহর্নিশ অক্লান্ত।
পদ্মপাতায় অস্থির জলবিন্দু,
রাঙ্গা পলাশের অনলরেখা,
স্নিগ্ধ শীতল বাতাস অপেক্ষায় জাগ্রত।
ঘাঁসফুল আপ্লূত, আহ্লাদিত হতে চায় তোর চরন স্পর্শে।
প্রতিনিয়ত সূর্য ওঠে, সন্ধ্যায় দিগন্তের অভিসারে যায়।

চৌত্রিশ বছর বড় অল্প সময়,
আমি অর্গল খোলা রাখতে পারি অনন্তকাল।
এই জাতক, পরের জাতক বা সমস্ত জাতক।
কখনো পিঁপড়ে, কখনো চড়ুই, কখনো চাতক হয়ে।
প্রতিটি নৈসর্গিক বস্তুকণার গর্ভে অপেক্ষা করতে পারি।
শুধু একটিবারের জন্য প্রস্ফুটিত হোক সেই অব্যক্ত
তোকেই ভালবাসি।

মন্তব্য

মন্তব্য সমুহ

সম্পর্কিত পোষ্ট =>  গতি
অমিত কুমার চৌধুরী- এর আরো পোষ্ট দেখুন →
রেটিং করুনঃ
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...