তুমি আজও তুমি

4b7cc5ed05c3bfdf48638f03ea9e4317-5সে কী বিস্ময়! সেই বসন্ত! কী করে ভুলি?
অমাবস্যার রাত নাকি সেটা দীর্ঘ চুলই
পরণকথার কোনো রূপসীর! আজকাল কারও
দেখি না তো চুল দীর্ঘ এতটা—
বিস্ময় সে কী! আর সেই চুলে তারার ফোঁটা—
কত লক্ষ তা? এক লক্ষই হবে—
দাবানল লাগা বনের শিখায়
ওড়ে এক কোটি অগ্নিকণা—
আমি ভুলব না সে উন্মাদনা!
বিস্ময়ে হই এমন বিমূঢ়—
প্রান্তরে থাকি দাঁড়িয়ে মূর্তি—কাঁধের ওপরে মুড়ো
খসে পড়ে যেতে চায় প্রান্তরে—
অগ্নিকণায় চোখের তারাটি পোড়ে।
আজ এভেন্যুয়ে এসে যেই দাঁড়ালাম—
সেদিন যুবক বেলার আমাকে বললাম,
ওরে থাম!
সেই একই ছবি! অগ্নি সে একই!
আজও যে হঠাৎ দেখি—
পরণকথার রূপসী তো নয় তোমাকেই দেখে উঠি
যেন জ্যোৎস্নার মাখন মাখানো হৃদয়ের পাউরুটি!
শুধু প্রতীকের হেরফের আর
বয়স গড়িয়ে যাওয়া—
তুমি আজও তুমি! স্মৃতির খাতায়
পাতা উড়ে যায়—
মুখ পরে মুখ—তোমারই তো মুখ—বসন্ত রাত!—
কত বসন্ত এল আর গেল—বারবার ফিরে পাওয়া।

মন্তব্য

মন্তব্য সমুহ

সম্পর্কিত পোষ্ট =>  শরীর দিয়েছ শুধু, বর্মখানি ভুলে গেছ দিতে
সৈয়দ শামসুল হক- এর আরো পোষ্ট দেখুন →
রেটিং করুনঃ
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...