ঘড়ির কাঁটার মতো

খুব ঘন কুয়াশার মধ্যে
আমরা দুজন
সোনালি কাঁকড়ার ক্ষুদ্র দাঁড়ার ওপর
ঘণ্টা আর মিনিটের কাঁটার মতন এক হ’য়ে
নিবিড় দাঁড়িয়ে আছি—
আমাদের সংকীর্ণ সাঁকোর নিচে
সময় গড়ায়…

তোমার মুখের মতো আর কোনো গাঢ় লাল ঘড়ি
কখনো দেখিনি—নেই;
আমাদের তড়িঘড়ি সংক্ষিপ্ত চুমোর মধ্যে কেবল দেখেছি
স্বপ্নের বাস্তবে ঘড়ির যুগলে কাঁটা
মিলেমিশে স্থির হ’য়ে আছে;

ভবিষ্যতে কোনো এক আলোকিত বিদেশি বন্দরে
পৃথিবীর দীর্ঘতম চুম্বনের প্রতীক্ষায়
খুব ঘন দেশি কুয়াশায়
সংক্ষিপ্ত সময়ব্যাপী আমাদের প্রগাঢ় চুম্বন…

পারদের মতো ভারী কিন্তু খুবই অস্থির এক
সময়ের জলে
চুম্বনে ও আলিঙ্গনে আমাদের পবিত্র শরীর ভেসে যায়…

ঘণ্টা আর মিনিটের কাঁটা যেমন যথার্থভাবে
একে অপরের টানে পরস্পর মিশে যায় একটি সময়ে
আমরা দুজন তেমনি সোনালি কাঁকড়ার তীক্ষ দাঁড়ার ওপর
ঠোঁটে ঠোঁট গুঁজে এক হ’য়ে আছি…

আমাদের উভয়ের ঠোঁটে
অত্যন্ত সুদূর এক চুম্বনের স্মৃতি:
দীর্ঘতম চুম্বনের প্রতি দৌড়ে যাই
আমরা দুজন;
স্কটল্যান্ড ইয়ার্ডের শিক্ষিত কুকুর সঙ্গে ক’রে
আমাদের পেছনে-পেছনে খুব দ্রুত ধেয়ে আসে
তোমার স্বামী ও তার সন্তানেরা
আমার স্ত্রী আর তার সন্তানেরা…

আমরা ওদের হাতে পাছে ধরা প’ড়ে যাই
সেই ভয়ে তুমি খুব দ্রুত শিমুলবীজের মতো
উড়ে এসে আমার শরীরে সেঁটে থাকো!

মন্তব্য

মন্তব্য সমুহ

সম্পর্কিত পোষ্ট =>  আট বছর আগের এক দিন
রফিক আজাদ- এর আরো পোষ্ট দেখুন →
রেটিং করুনঃ
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...