সেই এক রোদের রাখাল

এখনো আগের মতো দিন যায় নিজের নিয়মে।
সারাদিন ধুলো রোদে, তিন ভাগ রাত কাটে বিনিদ্র নেশায়
গহিন হৃদয় খুলে একা একা, তারপর…

পলাতক পাখিদের নাম, চিতল হরিণ
আর সেই চৈত্রের দুপুর__সেই এক রোদের রাখাল
তারে খুঁজি,
একটি গোলাপ কেন আজ তবে ফুটেছে শাখায়, বিষন্ন গোলাপ!

এখানে তো পাখিহীন, পুষ্পহীন, উষর জীবন,
এখানে কি জল ছিলো কোনোদিন, স্নেহ ছিলো?
আজ তবে একটি গোলাপ কেন ফুটেছে শাখায়?

যারা ছিলো স্বপ্নবান, যারা ছিলো স্নিগ্ধ, পুষ্পময়,
তারা কেউ বলেনিঃ পাতক, ফিরে এসো, ওপথে আঁধার।
তুমি তো শস্যের ছিলে, তুমি তো জ্যোৎস্নার ছিলে,
আজ তবে কেন এই ছিন্ন রক্তমাখা পোষাক পরেছো?
কেন এতো অভিমানে প্রতিদিন নিজেকে পোড়াও?
তারা তো বলেনি কেউঃ অমিতাভ ফিরে এসো__

একটি গোলাপ কেন আজ তবে ডাকলো পেছনে,
একটি গোলাপ কেন তবে আজ দুহাত বাড়ালো!!

মন্তব্য

মন্তব্য সমুহ

সম্পর্কিত পোষ্ট =>  রবীন্দ্রনাথ তোমার কবিতা উয়িদড্র করো
রুদ্র মুহান্মদ শহীদুল্লাহ- এর আরো পোষ্ট দেখুন →
রেটিং করুনঃ
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...