নিছক রূপকথা

হাত দু’টো কাঁপছিল তোমার,
শুকনো নিথর হাতে ধরেছিলাম আমি
সেই হাত,
যেন হৃদয় হাতের মুঠোয় ।
আমার অবশ মনে
বহুকাল পরে বয়েছিল উত্তাল ঝড় ।

হাত দু’টো কাঁপছিল তোমার,
সফেদ নখের আদল আমি দেখেছিলাম,
অবিরাম ।
যেন হঠাৎ দেয়াল ভেঙ্গে
নীরব বাতাস সুর তুলেছিল কানে।
হাত দু’টো কাঁপছিল তোমার ।
নীল রঙা চোখে অবাক আলো দৃশ্যমান ।

এত বছর পরে যখন আজ তোমাকে দেখলাম
দেখি, আজো হাত দু’টো কাঁপছে তোমার আমায় দেখে,
আজো ফিরে পেতে চাও নতুন করে
পুরনো অমাকে;
কিন্তু, আমি পারিনা তোমায় আগলে ধরতে, চাইলেও না
আমার আত্মবোধ আজও তোমায় ভালবাসতে দেয় না,
ঘৃণাও করতে দেয় না
আমার হাত দু’টো কেঁদে ওঠে নীরব শূন্যতায়
দেহের ভেতর কিসের যেন হাহাকার ॥

অস্ফুট শিশিরে পা মাড়িয়ে তোমার হাত ধরেছিলাম একদিন
হাতে তুলে দিয়েছিলাম রক্তে রাঙানো একটা গোলাপ,
ভেজা চুলে গেঁথে দিয়েছিলাম আমার আঙুলের স্পর্শ
তবু শূন্য হাতে ফিরিয়ে দেই তোমাকে আজ
অতঃপর, নিজেই ডুবে যাই শূন্যতায় ।
আর সেই গোলাপ টা…
নীরবে আত্মহত্যা করে পরে থাকে রাস্তার ওপাশে ।

– জিহান আল হামাদী
২৪শে নভেম্বর’ ২০১২

মন্তব্য

মন্তব্য সমুহ

সম্পর্কিত পোষ্ট =>  মা, ভালো আছো তো ?
জিহান আল হামাদী- এর আরো পোষ্ট দেখুন →
রেটিং করুনঃ
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...