অল্পকথা ডট কম

স্বর্নালী দিনের স্পর্শ

সাথে থাকুন

Download

গান শুনতে এখানে ক্লিক »করুন !

Member Login

Lost your password?

Not a member yet? Sign Up!

পাবলো নেরুদা

লেখকঃ পাবলো নেরুদা

লেখক সম্পর্কেঃ পাবলো নেরুদা (১২ জুলাই, ১৯০৪ – ২৩ সেপ্টেম্বর, ১৯৭৩) ছিলেন চিলিয়ান কবি ও রাজনীতিবিদ। তাঁর প্রকৃত নাম ছিল নেফতালি রিকার্দো রেয়েস বাসোয়ালতো। পাবলো নেরুদা প্রথমে তাঁর ছদ্মনাম হলেও পরে নামটি আইনি বৈধতা পায়। কৈশোরে তিনি এই ছদ্মনামটি গ্রহণ করেন। ছদ্মনাম গ্রহণের পশ্চাতে দুটি কারণ ছিল। প্রথমত, ছদ্মনাম গ্রহণ ছিল সে যুগের জনপ্রিয় রীতি; দ্বিতীয়ত, এই নামের আড়ালে তিনি তাঁর কবিতাগুলি নিজের পিতার কাছ থেকে লুকিয়ে রাখতেন। তাঁর পিতা ছিলেন কঠোর মনোভাবাপন্ন ব্যক্তি। তিনি চাইতেন তাঁর পুত্র কোনো "ব্যবহারিক" পেশা গ্রহণ করুক। নেরুদা নামটির উৎস চেক লেখক জান নেরুদা এবং পাবলো নামটির সম্ভাব্য উৎস হলেন পল ভারলেইন। পাবলো নেরুদাকে বিংশ শতাব্দীর অন্যতম শ্রেষ্ঠ ও প্রভাবশালী লেখক মনে করা হয়। তাঁর রচনা অনূদিত হয়েছে একাধিক ভাষায়। নেরুদার সাহিত্যকর্মে বিভিন্ন প্রকাশ শৈলী ও ধারার সমাবেশ ঘটেছে। একদিকে তিনি যেমন লিখেছেন টোয়েন্টি পোয়েমস অফ লাভ অ্যান্ড আ সং অফ ডেসপায়ার-এর মতো কামোদ্দীপনামূলক কবিতা সংকলন, তেমনই রচনা করেছেন পরাবাস্তববাদী কবিতা, ঐতিহাসিক মহাকাব্য, এমনকি প্রকাশ্য রাজনৈতিক ইস্তাহারও। ১৯৭১ সালে নেরুদাকে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কারে ভূষিত করা হয়। তাঁর রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডের জন্য তাঁকে এই পুরস্কার প্রদান নিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি হয়। কলম্বিয়ান ঔপন্যাসিক গাব্রিয়েল গার্সিয়া মার্কেস একদা নেরুদাকে "বিংশ শতাব্দীর সকল ভাষার শ্রেষ্ঠ কবি" বলে বর্ণনা করেন।[১] ১৯৪৫ সালের ১৫ জুলাই, ব্রাজিলের সাও পাওলোর পাকিম্বু স্টেডিয়ামে কমিউনিস্ট বিপ্লবী নেতা লুইস কার্লোস প্রেস্টেসের সম্মানে ১০০,০০০ লোকের সামনে ভাষণ দেন নেরুদা।[২] নোবেল পুরস্কার গ্রহণ করার পর চিলিতে ফিরলে সালভাদর আলেন্দে এস্ত্যাদিও ন্যাশোনালে ৭০,০০০ লোকের সামনে ভাষণ দেওয়ার জন্য আমন্ত্রণ জানান।[৩] জীবদ্দশায় নেরুদা একাধিক কূটনৈতিক পদে বৃত হয়েছিলেন। একসময় তিনি চিলিয়ান কমিউনিস্ট পার্টির সেনেটর হিসেবেও কার্যভার সামলেছেন। কনজারভেটিভ চিলিয়ান রাষ্ট্রপতি গঞ্জালেস ভিদেলা চিলি থেকে কমিউনিজমকে উচ্ছেদ করার পর নেরুদার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করলে তাঁর বন্ধুরা তাঁকে চিলির বন্দর ভালপারাইসোর একটি বাড়ির বেসমেন্টে কয়েক মাসের জন্য লুকিয়ে রাখেন। পরে গ্রেফতারি এড়িয়ে মাইহু হ্রদের পার্বত্য গিরিপথ ধরে তিনি পালিয়ে যান আর্জেন্টিনায়। কয়েক বছর পরে নেরুদা সমাজতন্ত্রী রাষ্ট্রপতি সালভাদর আলেন্দের এক ঘনিষ্ট সহকারীতে পরিণত হন। চিলিতে অগাস্তো পিনোচেটের নেতৃত্বাধীন সামরিক অভ্যুত্থানের সময়েই ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন নেরুদা। তিন দিন পরেই হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। জীবন্ত কিংবদন্তি নেরুদার মৃত্যুতে স্বাভাবিকভাবেই সারা বিশ্বে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি হয়। পিনোচেট নেরুদার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়াকে জনসমক্ষে অনুষ্ঠিত করার অনুমতি দেননি। যদিও হাজারে হাজারে শোকাহত চিলিয়ান সেদিন কার্ফ্যু ভেঙে পথে ভিড় জমান। পাবলো নেরুদার অন্ত্যেষ্টি পরিণত হয় চিলির সামরিক একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে প্রথম গণপ্রতিবাদে।

লেখকের ইউআরএলঃ
অবস্থান: চিলি
প্রোফাইলঃ ২৪১ views হয়েছে ।

পাবলো নেরুদা, মন্তব্য সংখ্যাঃ ০

পাবলো নেরুদা, পোষ্ট সংখ্যাঃ ২৭

যুক্ত হয়েছেনঃ জানুয়ারী ২৫, ২০১৩, শুক্রবার,

পাবলো নেরুদা 'র পছন্দের পোষ্টঃ
  • "এখনো কোন পছন্দের পোষ্ট যুক্ত করেন নাই ।"

  • পাবলো নেরুদার কবিতা

    সংযুক্তির তারিখঃ ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৪ লিখেছেনঃ পাবলো নেরুদা

    অনুবাদ: মুহাম্মদ হাবিবুর রহমান আর সেই বয়সে…কবিতা এসেছিল আমার খোঁজে। আমি জানি না, আমি জানি না কোথা থেকে তা এসেছিল, শীত না নদী থেকে। আমি জানি না কেমন করে বা কখন, না, তারা কণ্ঠস্বর নয়, তারা নয় শব্দ বা নৈঃশব্দ্য। কিন্তু আমাকে ডাক দেওয়া হয়েছিল এক রাস্তা থেকে রাত্রির শাখাপ্রশাখা থেকে, আচমকা অন্যদের মাঝখানে থেকে, […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ ,

    পাবলো নেরুদার কবিতা তে মন্তব্য বন্ধ

    একটি কুকুরের মৃত্যু

    সংযুক্তির তারিখঃ ০৭ মে ২০১৩ লিখেছেনঃ পাবলো নেরুদা

    মারা গেল আমার কুকুরটি তাকে আমি সমাহিত করি বাগানে পুরনো মরচে ধরা একটি যন্ত্রের পাশে। একদিন আমিও হবো তার অনুগামী তবে এখন সে পরলোকে তার বিচ্ছিরি কোটটিসহ খারাপ ব্যবহার আর ঠাণ্ডা নাক নিয়ে আর আমি এক বস্তুবাদী যে কখনও করেনি বিশ্বাস আকাশে প্রতিশ্রুত স্বর্গে, যার প্রত্যাশায় আছেন অনেকে। আমার বিশ্বাস, স্বর্গে কখনও হবে না আমার […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    একটি কুকুরের মৃত্যু তে মন্তব্য বন্ধ

    যদি আমায় তুমি ভুলে যাও

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৫ জানুয়ারী ২০১৩ লিখেছেনঃ পাবলো নেরুদা

    অনুবাদ:ইমন জুবায়ের একটি কথা আমি তোমাকে জানিয়ে দিতে চাই । তুমি কি জান আমি যখন আমার জানালার বাইরে মন্থর হেমন্তের লাল ডালে স্ফটিক চাঁদটির দিকে তাকাই, যদি ছুঁয়ে দিই আগুনের কাছটিতে অবোধগম্য কিছু ছাই কিংবা কাটা গুঁড়ির বৃত্তাকার শরীর- এসবই তোমার নিকটে আমায় বহন করে নিয়ে যায়, যেনবা- যা কিছু অস্তিত্বশীল, সুগন্ধ, আলো, কিংবা ধাতুসমূহ, […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    যদি আমায় তুমি ভুলে যাও তে মন্তব্য বন্ধ

    আমার কাছ থেকে দূরে থেকো না

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৫ জানুয়ারী ২০১৩ লিখেছেনঃ পাবলো নেরুদা

    আমার কাছ থেকে দূরে থেকো না, দয়া করো একটা দিন অনেক অনেক দীর্ঘ সময়, অনেক দূরে ঘুমে থাকা ট্রেনের আশায় নীরব ইস্টিশানের জন্যে, আমার জন্যে। একদন্ড আমায় ছেড়ে যেয়ো না, কারণ- ভয়ের শীতল স্রোত ঘিরে ফেলে আমায়, অথবা ঘর খোঁজা ধোঁয়া এসে চেপে বসে বুকের উপরে, গলা টিপে ধরে আমার। হারিওনা তুমি ছায়া হয়ে সমুদ্র […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    আমার কাছ থেকে দূরে থেকো না তে মন্তব্য বন্ধ

    মাতাল ও মাছকন্যা

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৫ জানুয়ারী ২০১৩ লিখেছেনঃ পাবলো নেরুদা

    অনুবাদ:চয়ন খায়রুল হাবিব এক্কেবারে নেংটো মেয়েটি ঢোকবার সময় পানাশালাত বেশ ক’জন জোয়ান মর্দ বসে বসে পান করছিল। পান করতে করতে,ওরা মেয়েটির দিকে থু থু থু…করে থুতু ছিটাচ্ছিল। সবে সাগর থেকে উঠে আসা মেয়েটি এসবের কিছুই বুঝতে পারছিল না। মেয়েটি পথ হারানো মাছকন্যা । টিটকারি থু থুক্কার জ্বলজ্বলে মাংশ ছুয়ে পিছলে পিছলে খসে পড়ছিল। খিস্তি খেউড়ে […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    মাতাল ও মাছকন্যা তে মন্তব্য বন্ধ

    এঞ্জেলা

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৫ জানুয়ারী ২০১৩ লিখেছেনঃ পাবলো নেরুদা

    অনুবাদ:চয়ন খায়রুল হাবিব আজকে শুয়েছিলাম এক খাটি তরুনির পাশে সাদা সাগরের তিরে জ্বলন্ত তারাদের ঠিক মাঝখানে সব ঘটছিল খুব আস্তে আস্তে টানা সবুজ চাহনিতে ঝলসানো আলোতে শুকনো পানির দাগ টলটলে গভির গোল্লাছুটের তিব্র আর তাজা আবেগ বুকের বোটায় দুটি দুমুখি মশাল জ্বলছে খাড়া দুই দুটি অঞ্চলেঃ জ্বলতে জ্বলতে গলেছিল নদিপথে পরিস্কার পায়ের পাতায় মৌসুমি বাতাসে […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    এঞ্জেলা তে মন্তব্য বন্ধ

    তোমাকে পছন্দ করি স্থির

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৫ জানুয়ারী ২০১৩ লিখেছেনঃ পাবলো নেরুদা

    অনুবাদ:চয়ন খায়রুল হাবিব তোমাকে পছন্দ করি এক্কেবারে স্থির এমনটা য্যনো তুমি আসলে নেই আমাকে শুনতে পাচ্ছ দুর থেকে, কিন্তু আমার গলার স্বর তোমাকে ছুচ্ছে না তোমার চোখগুলো কোথায় য্যনো উড়ে গেছে তোমার মুখ তালামারা চুমুর সিলগালায় সবকিছুতেই আমার আত্মা তুমি আবার আমার সবকিছুতেই আমার আত্মার স্বপ্নের প্রজাপতি এবং তুমি “বিশন্নতা” নামক শব্দটার ধারক ও বাহক […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    তোমাকে পছন্দ করি স্থির তে মন্তব্য বন্ধ

    কবিতা

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৫ জানুয়ারী ২০১৩ লিখেছেনঃ পাবলো নেরুদা

    অনুবাদ:চয়ন খায়রুল হাবিব এবং ঐ বয়সটাতে…কবিতা এসেছিল আমার খোজে।আমি জানতাম না, জানতাম না কোথ্যেকে, শিতকাল না কি নদি থেকে, কিভাবে কখন জানতে পারি নি, না, কোনরকম শব্দও শুনিনি, নিশব্দও না, কিন্তু রাস্তা থেকে ও আমাকে ডেকেছিল, পুড়তে পুড়তে, ভয়ঙ্কর আগুনের হলকায় হুটোপুটি করতে করতে, রাতের ডালপালারা ডেকেছিল ইশারায়ঃ ভিড় থেকে দুরে সরে যেতে বলেছিল আমার […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    কবিতা তে মন্তব্য বন্ধ

    নেংটো সুন্দরির বন্দনায়

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৫ জানুয়ারী ২০১৩ লিখেছেনঃ পাবলো নেরুদা

    অনুবাদ:চয়ন খায়রুল হাবিব খাস কলিজায় পাক সাফ চোখে আমি তোমার সৌন্দর্জ উদজাপন করি অঝরে ঝরা রক্তপাত ধরে রাখি যাতে তা লাগাম পরাতে পারে আমার কবিতায় শোয়া তোমার শরিরের বাকে জংগল ঘেরা জমিতে অথবা সমুদ্রে সার্ফিংঃ সুগন্ধি ফেনায় সাগরের বাজনায়। ও নেংটো সুন্দরিঃ সমান তালে তালে সুন্দর তোমার পায়ের পাতা প্রাচিন বাতাস আর শব্দের কারুকাজ আঙ্গুলের […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    নেংটো সুন্দরির বন্দনায় তে মন্তব্য বন্ধ

    সবচে’ দুখের কবিতা

    সংযুক্তির তারিখঃ ২৫ জানুয়ারী ২০১৩ লিখেছেনঃ পাবলো নেরুদা

    অনুবাদ:জি.এম.তানিম আমি আজ রাতে সবচে’ দুখের কবিতা লিখতে পারি। লিখতেই পারি (যেন মনে করো): “হাজার তারার মেলা, রাতের আকাশে, নীলচে তারারা মিটিমিটি জ্বলে দূরে।” রাতজাগা হাওয়া হারায় আকাশে ঘুমমাখা গান গেয়ে । আমি আজ রাতে সবচে’ দুখের কবিতা লিখতে পারি। ভালোবেসেছিল এই মন তাকে, মাঝে মাঝে সেও মোরে। এমন অনেক আনমনা রাতে তাকে দুই হাতে […] বিস্তারিত

    ট্যাগসমুহঃ

    সবচে’ দুখের কবিতা তে মন্তব্য বন্ধ

    ই-মেইলের মাধ্যমে নতুন পোষ্ট-এর জন্য

    আপনার ই-মেইল লিখুন

    ,

    আগস্ট ২০, ২০১৭,রবিবার

    Custom Search
    আপনার বিজ্ঞাপন !

    বাংলা সংবাদপত্র