বাইরে আনো নিজেকে

ভিরু, চলৎশক্তিহীন যে নারীর রূপ লেপটে আছো।
সে তুমি নও।
যে ব্যস্ত, অফিস ফেরত ক্লান্ত, রান্নার আঁচে তপ্ত
এলিয়ে পরো বিছানায়;
এ তুমি তো সে তুমি নও।

একদিন তন্বী হরিণীর মতো দাপিয়ে বেড়াতে ক্লাসরুম।
ঝোরার মতো ছলকে বেরত তোমার হাসি।
অন্যায়ের প্রতিবাদে আগুনের হল্কা ছুটত তোমার শব্দে।
সেই তোমাকে চেয়েছিলাম পাগলপারা আমি।
এ তুমি কিছুতেই সে তুমি নও।

তোমার পলাশ পাঁপড়ি ঠোঁটের আবডালে
জড়িয়ে রেখেছ যে লাল টিপ বালিকা;
তাকে বাইরে আনো।
তোমার শান্ত নদী হৃদয়ের অতলে
লুকনো যে মেঘবালিকা;
তাকে বাইরে আনো।
উষ্ণ নিশ্বাসে লুকনো তোমার প্রতিবাদ
তাকেও বাইরে আনো।

তোমার ফাগুন আবিরে রাঙাবো জীবন।
অনল স্পর্শে ঋদ্ধ করব আমার আত্মা।
তারপর অনেকক্ষণ ভিজবো তোমার আলিঙ্গন বৃষ্টিতে।

মন্তব্য

মন্তব্য সমুহ

সম্পর্কিত পোষ্ট =>  কল্পনার স্মৃতি
অমিত কুমার চৌধুরী- এর আরো পোষ্ট দেখুন →
রেটিং করুনঃ
1 Star2 Stars3 Stars4 Stars5 Stars (No Ratings Yet)
Loading...