অল্পকথা ডট কম

স্বর্নালী দিনের স্পর্শ

সাথে থাকুন

Download

গান শুনতে এখানে ক্লিক »করুন !

Member Login

Lost your password?

Not a member yet? Sign Up!

Archive |মার্চ,২৬, ২০১৫

মজা নদী

লিখেছেনঃ

মজা নদী ওগো মজা নদী মনে আছে? তীর ভাঙা তিন তরঙ্গে খান খান হয়েছিল বুক, ঠুকরে নিলো কি মাছে? ওষ্ঠের সব চুম্বন অভিমান? মনে করো সেই ঢেউয়ে ভরা দিনগুলি দিন চলে গেছে শেওলার স্মৃতি ভরা, আজও কি ডাকে না কলমির অঙ্গুলি? নদী করেছিল নদীকে স্বয়ম্বরা! নদী তুমি নেই, তবু যে দীর্ঘ রেখা কল্পিত স্রোতে ভেসে […] বিস্তারিত

ট্যাগ সমুহঃ

মজা নদী তে মন্তব্য বন্ধ

মানুষের ডেরায় স্বপ্নের খুঁটি

লিখেছেনঃ

ছোট ক্যানভাসটিকে নানা রঙে ভরিয়ে তুলছে আমিনউদ্দিন। গাছের নিচে বসে আঁকা ওর প্রিয় অভ্যাস। এমন একটি অভ্যাসের ভেতরে ঢোকার দিন-তারিখের হিসাব আমিনের মনে নেই। শুধু মনে আছে, যুদ্ধ শেষে দেশে ফিরলে এমন একটি চিন্তা ওর ভেতরে ভোরের অলোর মতো ছড়ায়। ক্যানভাসের রঙের মধ্যে ফুটে থাকবে শহীদের মুখ। গ্রামের স্কুলে চাকরি করতে এসে এমন একটি ছায়াঘেরা […] বিস্তারিত

ট্যাগ সমুহঃ

মানুষের ডেরায় স্বপ্নের খুঁটি তে মন্তব্য বন্ধ

দেবদাস

লিখেছেনঃ

ফেব্রুয়ারি মাসে দেবদাস রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ফিরে এলেন। দেশ স্বাধীন, কিন্তু দেবদাস নির্বাক। বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতার কাজে যোগ দিলেন না। সহকর্মীরা বলছেন কাজে যোগ দিতে। বাংলার অধ্যাপক বললেন, ‘আগে কাজে যোগ দিন, তারপর অন্য কথা।’ দেবদাস উল্টো প্রশ্ন করে বসলেন, ‘কী হবে কাজে যোগ দিয়ে!’ না, এটি উত্তর নয়। নিজের সঙ্গে নিজের সওয়াল-জবাব। আপন মনে কথা […] বিস্তারিত

ট্যাগ সমুহঃ

দেবদাস তে মন্তব্য বন্ধ

এই নরকের এই আগুন

লিখেছেনঃ

ভীরু বালকেরে বাড়ীঘর দাও মাতৃনিবাসে মেট্রন দাও পার্কে ছড়াও যুঁইফুল ঘাস অনিদ্র, জোড়াখুন হোক একটু ভদ্র কবিরা লিখুক দু’এক ছত্র প্রেমের গান! হে মেঘ, প্লাবন বৃষ্টি দাও গলাকাটা দিন সুদূরে সরাও- নারীর মতো পেটে তুলে নাও সুসন্তান! ক্ষণিক আমরা, ভালোবাসা থাক পথে পরাজিত হাওয়া সরে যাক পাতা ঝরাদের দলীয় ঝগড়া, অসম্মান! যা কিছু অমল ধবল […] বিস্তারিত

ট্যাগ সমুহঃ

এই নরকের এই আগুন তে মন্তব্য বন্ধ

ঝংকার তোলে কাব্যের রানি

লিখেছেনঃ

আমি কবি। আমি কথা বলে যাই নিজের ছন্দে আমার শব্দ আমারই গন্ধে— আনন্দে মাতে—দু-হাত তুলে; নূপুর ঘুঙুর কে পরেছে পায়—নৃত্যপরা নাচের মুদ্রা ঘুরে ঘুরে শুধু দিচ্ছে ধরা কী নাম তোমার, কোথায় বা ধাম। কীবা পরিচয়? তবু বলি জয় তোমার বিজয় আসছে ধীরে, নৃত্যের ঢেউয়ে খেলছে দেহের অঙ্গ বুঝি তালে তালে নাচো তরঙ্গ তুলে। আসুক ফিরে— […] বিস্তারিত

ট্যাগ সমুহঃ

ঝংকার তোলে কাব্যের রানি তে মন্তব্য বন্ধ

ময়না

লিখেছেনঃ

এই যে কাকভোরে উঠে দরজা ঝাঁট দিই এই যে হাজারবার গিন্নিমার মুখ শুনি বৌদির কাপড় আর দাদার ফুলপ্যান্ট কেচে নড়া ব্যথা করি বাবুর ধমক খাই অপিসের আগে, বাচ্চা সামলাই আর এই যে সাতবার ক’রে দোকানে দৌড়োই, সে তো মোড়ে তুই রিক্সা নিয়ে আছিস ব’লেই, সে তো পাসিঞ্জার তুলে কি নামিয়ে তুই রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিস ব’লেই, […] বিস্তারিত

ট্যাগ সমুহঃ

ময়না তে মন্তব্য বন্ধ

আমি তোমারে করিব নিবেদন

লিখেছেনঃ

আমি তোমারে করিব নিবেদন আমার হৃদয় প্রাণ মন! ক্ষমা করো আমায়, বরণযোগ্য নহি বরাঙ্গনে, ব্রহ্মচারী ব্রতধারী। হায় হায়, নারীরে করেছি ব্যর্থ দীর্ঘকাল জীবনে আমার। ধিক্‌ ধনুঃশর! ধিক্‌ বাহুবল! মুহূর্তের অশ্রুবন্যাবেগে ভাসায়ে দিল যে মোর পৌরুষসাধনা। অকৃতার্থ যৌবনের দীর্ঘশ্বাসে বসন্তেরে করিল ব্যাকুল॥ — রোদন-ভরা এ বসন্ত কখনো আসে নি বুঝি আগে। মোর বিরহবেদনা রাঙালো কিংশুকরক্তিমরাগে। Ami […] বিস্তারিত

ট্যাগ সমুহঃ

আমি তোমারে করিব নিবেদন তে মন্তব্য বন্ধ

হৃদয়ের এ কূল , ও কূল , দু কূল ভেসে যায় , হায় সজনি

লিখেছেনঃ

হৃদয়ের এ কূল , ও কূল , দু কূল ভেসে যায় , হায় সজনি , উথলে নয়নবারি । যে দিকে চেয়ে দেখি ওগো সখী , কিছু আর চিনিতে না পারি ।। পরানে পড়িয়াছে টান , ভরা নদীতে আসে বান , আজিকে কী ঘোর তুফান সজনি গো , বাঁধ আর বাঁধিতে নারি ।। কেন এমন হল […] বিস্তারিত

ট্যাগ সমুহঃ

হৃদয়ের এ কূল , ও কূল , দু কূল ভেসে যায় , হায় সজনি তে মন্তব্য বন্ধ

ও যে মানে না মানা

লিখেছেনঃ

    ও যে মানে না মানা।     আঁখি ফিরাইলে বলে, ‘না, না, না।’ যত বলি ‘নাই রাতি–     মলিন হয়েছে বাতি’         মুখপানে চেয়ে বলে, ‘না, না, না।’         বিধুর বিকল হয়ে খেপা পবনে                 ফাগুন করিছে হাহা ফুলের বনে।     আমি যত বলি ‘তবে        এবার যে যেতে হবে’     দুয়ারে দাঁড়ায়ে বলে, ‘না, না, না।’ রাগ: ভৈরবী তাল: দাদরা রচনাকাল (বঙ্গাব্দ): 1316 রচনাকাল (খৃষ্টাব্দ): 1909 স্বরলিপিকার: সুরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় […] বিস্তারিত

ট্যাগ সমুহঃ

ও যে মানে না মানা তে মন্তব্য বন্ধ

হা হতভাগিনী, একি অভ্যর্থনা মহতের

লিখেছেনঃ

হা হতভাগিনী, একি অভ্যর্থনা মহতের, এল দেবতা তোর জগতের, গেল চলি, গেল তোরে গেল ছলি— অর্জুন! তুমি অর্জুন! বেলা যায় বহিয়া, দাও কহিয়া কোন্ বনে যাব শিকারে। কাজল মেঘে সজল বায়ে হরিণ ছুটে বেণুবনচ্ছায়ে॥ Ha hotobhagini kotha বিস্তারিত

ট্যাগ সমুহঃ

হা হতভাগিনী, একি অভ্যর্থনা মহতের তে মন্তব্য বন্ধ

ই-মেইলের মাধ্যমে নতুন পোষ্ট-এর জন্য

আপনার ই-মেইল লিখুন

,

জুন ১৪, ২০১৭,বুধবার

Custom Search
আপনার বিজ্ঞাপন !

বাংলা সংবাদপত্র